শেয়ার বাজার তার নিজস্ব গতিতেই চলছে ! ষ্টেশনে এসে ইনডেক্স থামছে !

0
(0)

2015_12_20_21_16_17_tDa7rR2YZXABhhGJpghSZ55jwUcJ5h_originalবাজারে পতন অব্যাহত আছে তবে গতকালের পতনের মাত্রা ছিল মৃদু।সপ্তাহের শেষদিন বৃহস্পতিবারের বাজার বিশ্লেষন করলে দেখা যায় সারাদিনে বাজার মাত্র ১৪ পয়েন্টের মদ্যে উঠানামা করে এবং দিনের বেশীর ভাগ সময়ই ৫-৬ পয়েন্ট নেগেটিভ ছিল।গতকাল বাজার শুরু হয় ৪৩৮১ পয়েন্ট দিয়ে সর্বোচ্চ উঠে ৪৩৯০ সর্বনিন্ম নামে ৪৩৬৬ এবং দিনশেষে ১০.৬৬ পয়েন্ট হারিয়ে ক্লোজ হয় ৪৩৭০.৫ পয়েন্টে। এ ধরনের সামান্য পয়েন্টের ব্যবধানের উঠানামানকে মৃদু উঠানামা বলা যায়।সাধারনত ডাউন মার্কেটের তলায় সাপোর্ট লেভেলে এসে মার্কেট এধরনের আচরন করতে দেখা যায়।বাজার যে এরকম আচরন করবে তা আগের দিনই আমাদের বাজার বিশ্লেষনে আপনাদেরকে জানিয়েছিলাম।অর্ত্যাৎ বাজার এখানে কিছুদিন ঘুরপাক খাবে।সড়ক পথ,নৌ পথ রেল পথ আকাশ পথ আপনি যে পথেই চলেন চলার পথে ষ্টেশন থাকে।সেই স্টেশনে কিছু সময়ের জন্য হলেও স্টপিজ দিতে হয়।শেয়ার বাজারের ইনডেক্সেরও আপ ডাউনের চলার পথে স্টপিজ দেয়ার জন্য ষ্টেশন রয়েছে।ইনডেক্সের সেই ষ্টেশনের নাম হচ্ছে সাপোর্ট এবং রেজিষ্টেন্স।ডাউন মার্কেটে সাপোর্ট লেভেলে গিয়ে কিছু সময় থামবে আর আপ মার্কেটে রেজিষ্টেন্সে গিয়ে কিছু সময় থামবে।যারা টেকনিক্যাল এনালাইসিস বোঝেন তাদের এ দুটা ষ্টপিজ হচ্ছে এন্ট্রি এবং এক্সিটের মূখ্য সময়।অর্থ্যাৎ গাড়ি যেমন ষ্টেশনে থামলে যাত্রী উঠানামা করে ঠিক তেমনি ইনডেক্সের সাপোর্ট এবং রেজিষ্টেন্স লেভেলে এসে থামার পর স্মার্ট ট্রেডাররা উঠানামা করে।ফলে এনালিষ্ট তথা স্মার্ট ট্রেডাররা বাই সেল টাইমিংয়ের সমন্বয় করে সারা বছরই প্রফিট করতে পারে।যারা এনালাইসিস বোঝে না তারা আপ ডাউন উভয় মার্কেটেই হতাশ হয়।

Rate This

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

As you found this post useful...

Follow us on social media!