শেয়ার বাজারে লুজার থেকে উত্তোরনের টিপস

0
(0)

images(1)শেয়ার বাজারে বহুল প্রচলিত দুটি বাক্য দিয়ে আজকের লেখা শুরু করতে চাই।একটি বাক্য হল “শেয়ার বাজারে ৯০% বিনিয়োগকারী লুজার হয়” আরেকটি বাক্য হল ” শেয়ার বাজারের ১০% বিনিয়োগকারী কিছুই বোঝে না, ৮০% বিনিয়োগকারী নিজেকে মনে করে সব জান্তা অথচ তারাও কিছু জানে না, বাকি ১০% বিনিয়োগকারী সবই জানে” এবার এ দুটি বাক্যকে যদি অংকের সূত্র দিয়ে রেজাল্ট বের করা হয় তাহলে ফলাফল বের হবে ১০% বিনিয়োগকারী গেইনার এবং ৯০% বিনিয়োগকারী লুজার।অতএব এই সূত্র থেকে আমরা বোঝতেই পারি যে, ১০% বাজার বোঝনেওয়ালা গেইনার,৮০% স্বঘোষিত সবজান্তা লুজার এবং ১০% কিছুই জানে না তারাও লুজার।যেহেতু প্রচলিত বাক্যের রেজাল্ট বলছে ১০% বিনিয়োগকারী গেইনার সেহেতু এই মার্কেটে গেইনার হতে হলে আপনাকে ১০% এর দলে প্রবেশ করতে হবে নতুবা বাধ্য হয়েই লুজারের দলে পড়তে হবে।সুতরাং কোনো ট্রেডে লস করলে বাজারকে দোষারোপ না করে আগে নিজেকে প্রশ্ন করুন যে আইটেমে লস করছেন সেই আইটেম সম্পর্কে কতটুকু জানেন এবং কোন থিউরিতে কিনছিলেন।৯০% বিনিয়োগকারীকে যদি প্রশ্ন করা হয় আপনি ওই আইটেমটা কেন কিনলেন? কেউ বলবে করিম বলছে তাই কিনছি।করিমকে যদি জিজ্ঞাসা করা হয় তাহলে বলবে রহিম কিনছে তাই কিনছি,কেউ বলবে শুনছি এটাতে গেম্বলার ঢুকছে তাই কিনছি, কেউ বলবে সামনে এটা ভাল ডিভিডেন্ড দিবে তাই কিনছি।

অর্থ্যাৎ ৯০% লুজারদের হোল্ডিং আইটেমটি কেনার কারন কি জিজ্ঞাসা করলে সে নিজের টেকনিক্যালি কোনো থিউরি দেখাবে না উরন্ত নিউজ হুজুগ গুজব দেখাবে।আইটেমটি কেন বাড়বে বা কেন কমবে ট্রেডার নিজে যদি সেই টেকনিক্যালি ধারনা না করতে পারে তাহলে শেয়ার বাজার তার জন্য নয়।পরের নিউজ পরের ট্রেডিংয়ের উপর নির্ভর করে শেয়ার বাজারে প্রফিট করা সম্ভব না।যদিও নিউজটি সঠিক হয় আপনার কাছে পৌঁচতে পৌঁচতে বাই নয় সেল দেয়ারই মহরা হয়।বাজার সম্পর্কে সম্যক ধারনা না নিয়ে অন্যের প্ররোচনায় পরে যারা এই মার্কেটে এসেছে তাদের ৯০% ই লুজার হয়েছে এবং ভবিষ্যতেও হইতে থাকবে।এটা প্রেজেন্ট ও ফিউচার কন্টিনিওয়াস।এ পরিস্থিতি থেকে উত্তোরনের উপায় কি? যারা লুজার তাদের জন্য লস এড়ানোর ৩টি অপশন রয়েছে। ১। এখন থেকে অন্যের কথায় আইটেম কেনা বাদ দিয়ে নিজে এনালাইসিস শিখার চেষ্টা করতে হবে এবং পরীক্ষামূলক নিজে নিজে প্রফিটাবল আইটেম সিলেক্টের আপ্রান চেষ্টা করতে হবে।আমার বিশ্বাস যেদিন থেকে এনালাইসিস শেখার চেষ্টা করবে সেদিন থেকেই লস কমতে শুরু করবে। ২। নিজে এনালাইসিস করা সম্ভব না হলে মার্চেন্ট ব্যাংক বা ওইসব প্রতিষ্টানের পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্টের কোনো দক্ষ ট্রেডারকে পোর্টপোলিওর দায়িত্ব দেয়া যেতে পারে। ৩। কোনো অভিজ্ঞ বাজার বিশ্লেষকের পরামর্শে ২-৩ টা আইটেম দীর্ঘ মেয়াদী অর্থ্যাৎ ৫-৭ বছরের জন্য বাই দেয়া যেতে পারে। উপরোক্ত ৩টি অপশনের কোনোটাই গ্রহন না করলে লস মেনে নিয়ে বাজার থেকে বেরিয়ে যাওয়াই ভাল।অন্যতায় বাজার ভাল থাকলেও আপনার লসই হবে কারন আপনি বাজার বোঝেন না।বোঝার চেষ্টাও করেন না।
তাই যেটুকু অবশিষ্ট আছে সেটুকু নিয়েই আপনাকে বাড়িতে ফিরে যেতে হবে।নতুবা এক্সপার্ট ট্রেডাররা আপনার বাকি টুকুও নিয়ে যাবে।

Rate This

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

As you found this post useful...

Follow us on social media!