কম হোক বেশী হোক তেজীভাব থাকতে প্রফিট তুলে নেয়াই সর্বোত্তম পন্থা।

0
(0)

car-mechanic-working-auto-repair-service-professional-35581655 সময় এবং নদীর শ্রোত যেমন কারো জন্য অপেক্ষা করে না ঠিক তেমনি শেয়ার বাজারের প্রফিট কারো জন্য অপেক্ষা করে না।কম হোক বা বেশী হোক প্রফিটে যাওয়া মাত্র প্রফিট তুলে নেয়াই শেয়ার বাজারে টিকে থাকার সর্বোত্তম পন্থা।২০১০সালের মহা পতনের পর থেকেই শেয়ার বাজারের ইনডেক্সে আপ ডাউনের মধ্য দিয়ে কানামাছি/লুকুচুরি খেলা চলছে।শেয়ার বাজারে উত্তান পতন থাকবে এটাই স্বাভাবিক।কিন্তু আমাদের বাজারের বিনিয়োগকারীরা গত ৫বছর যাবত আস্থাহীনতায় ভুগছে।বাজারের প্রতি আস্থাহীনতার কারনেই বাজার স্থিতিশীল হলে গতিশীল হচ্ছে না আবার গতিশীল হলে স্থিতিশীল হচ্ছে না।ইনডেক্স টানা ২দিন বাড়লে বা কমলে ৩য় দিন কোন দিকে যাবে সেই পথ খুজে পায় না তাই দিনভর ইনডেক্স উঠানামায় ব্যাপক অস্থিরতা দেখা যায়।৩য় কার্যদিবসে বেশ উঠানামা শেষে মার্কেট যদি কারেকশনে যায় চতুর্থ কার্যদিবস থেকেই শুরু হয় পেনিক সেল।কারেকশন থেকে পেনিক সেল আর পেনিক সেল থেকেই দীর্ঘ পতন।এভাবেই গত ৫বছর যাবত ইনডেক্স বিনিয়োগকারীদের সাথে লুকুচুরী খেলছে।ইনডেক্সের এই লুকুচুরি আপ ডাউন খেলার মূল কারন হচ্ছে আস্থাহীনতা।ধারনা করা হচ্ছে মার্কেটের প্রতি আস্থার অভাবে বড় বিনিয়োগকারীরা সামান্য প্রফিট হলেই সেল দিয়ে প্রফিট তুলে নিয়ে বাই ব্যাক না করে কারেকশনের অপেক্ষায় হাত গুটিয়ে বসে থাকেন।ফলে ইনডেক্স এবং লেনদেন ধীরে ধীরে কমতে কমতে শেয়ার দর বড় বিনিয়োগকারীদের হাতের নাগালে আসলে তাদের বাই প্রেসারে মার্কেট আবার ঘুরে দাড়ায়।মূলত আস্থাহীনতার কারনে বড় বিনিয়োগকারীরা দীর্ঘ মেয়াদীর চেয়ে ডে ট্রেডিংকেই নিরাপদ মনে করছেন।তাদের ডে ট্রেদের বাই সেল প্রেসারের কারনেই মার্কেট দীর্ঘ মেয়াদে স্থিতিশীল/গতিশীল হতে পারছে না।ইনডেক্সের এই লুকুচুরি খেলায় ডে ট্রেডিং করে বড় বিনিয়োগকারীরা বাই সেল করে ব্যাপক প্রফিট করলেও সাধারন ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা প্রফিট তো স্বপ্নের কথা লসই রিকভার করতে পারছেন না।অবশ্য ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের অনেকেই ডে ট্রেড করে থাকেন।তবে তাদের অধিকাংশই লোভ,হতাশা,স্বল্প সময়ে অধিক প্রফিটের উচ্চাশা আইটেমের রেজিষ্টেন্স,সাপোর্ট লেভেল সহ ইনডিকেট গুলো না বোঝার কারনে স্বল্প সময়ে প্রফিটে গেলেও আরো বেশী পাবার আশায় তারা প্রফিট ঘরে তুলে না বরং তাদের আইটেমের দর যত বাড়ে উচ্চাভিলাষি কল্পনাও তাদের বাড়তে থাকে।অধিক পাবার কল্পনা করতে করতেই একদিন আইটেমটি কারেকশনে চলে যায়।তারপরও তারা সেল না দিয়ে আগের সর্বোচ্চ দর পাবার আশায় আরো কয়েকদিন অপেক্ষা করে।একসময় প্রফিট গুলো তাদের হাত থেকে ফসকে গিয়ে তাদের কেনা দরে চলে আসে।তারপরও অনেকে সেল না দিয়ে আবার প্রফিটের আশায় অধীর আগ্রহে বসে থাকে।কিন্তু বিধি বাম এবার প্রফিটের বদলে লস গুনতে হচ্চে।এক সময় অধৈর্য্য হয়ে লসেই শেয়ার সেল দিয়ে বেড়িয়ে যেতে দেখা যায়।ফলে অতি লোভে সময়+প্রফিট+পুজি তিনটাই হারিয়ে নিজেকে বড় অসহায় মনে করে।মনে রাখা দরকার কোনো আইটেম কারেকশনে গেলেই আইটেমটি স্লো হয়ে যাবে এবং সহজে আর আগের তেজী ভাব আসবে না।অতএব ইনডেক্সের লুকুচুরী মার্কেটে প্রফিট পাওয়া মাত্রই সেল দিয়ে প্রফিট নেয়ার বিকল্প নেই।এই বাজারে টিকে থাকতে হলে লোভ,আবেগ এবং ভয়কে জয় করতে হবে।

Rate This

Average rating 0 / 5. Vote count: 0

No votes so far! Be the first to rate this post.

As you found this post useful...

Follow us on social media!